চ্যানেল আই’র রং তুলিতে মুক্তিযুদ্ধ : ‘লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা’য় অংশ নেবে উদীচী

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাহিত্য বাজার

Sharing is caring!

Rongtulita-Muktijudho'14-Upতুলির আঁচড়ে জাগ্রত হবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা। এই আশা ব্যক্ত করে লাল-সবুজের শক্তি চ্যানেল আই পঞ্চমবারের মতো আয়োজন করতে যাচ্ছে ‘রংতুলিতে মুক্তিযুদ্ধ’। অনুষ্ঠানটির প্রধান পৃষ্ঠপোষক আইএফআইসি ব্যাংক। ২৬ শে মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস উপলে চিত্রাংকন অনুষ্ঠান ‘রং তুলিতে মুক্তিযুদ্ধ’তে মুক্তিযুদ্ধের তাৎপর্যপূর্ণ চিত্রাংকন করবেন হাশেম খানের নেতৃত্বে দেশ বরেণ্য চিত্রশিল্পীবৃন্দ। এ সময় চিত্রাংকনের পাশাপাশি মূল মঞ্চে সঙ্গীত পরিবেশন করবেন রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা ও সুরের ধারার শিল্পীরা। চ্যানেল আই প্রাঙ্গণে ২৬ মার্চ চ্যানেল আই’র দুপুর ২টার সংবাদের পর অনুষ্ঠানটির উদ্বোধনী পর্বে একত্রিত হবেন চিত্রশিল্পী, মুক্তিযোদ্ধা, আবৃত্তিশিল্পীরা। মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ করবেন খেতাব প্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধারা।
এ উপলে চ্যানেল আই কার্যালয়ে ২৩ মার্চ এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়ে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চ্যানেল আই ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, আইএফআইসি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহ আলম সারোয়ার, চিত্রশিল্পী হাশেম খান ও সমরজিৎ রায় চৌধুরী। সংবাদ সম্মেলনে ফরিদুর রেজা সাগর বলেন- লাল সবুজ আমাদের শক্তি, অহংকার, গর্ব। ‘রংতুলিতে মুক্তিযুদ্ধ’ এমন এক অনুষ্ঠান যা চিত্রাংকনের মাধ্যমে বিশ্ব দরবারে দেশের মুক্তিযুুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করছে। এ সময় তিনি অনুষ্ঠানটির সঙ্গে আইএফআইসি ব্যাংক সম্পৃক্ত হওয়ায় ধন্যবাদ জানান। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ফরিদুর রেজা সাগর বলেন বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সাথে যেসব দেশের চিত্রশিল্পীদের অবদান ছিলো আগামীতে তাদেরও সম্পৃক্ত করা হবে।
‘রংতুলিতে মুক্তিযুদ্ধ’ অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করবেন আফজাল হোসেন। পরিচালনা করবেন আমীরুল ইসলাম ও শহিদুল আলম সাচ্চু।
পুরো অনুষ্ঠানটি চ্যানেল আই ২৬ মার্চ দুপুর ৩.০৫ মিনিট থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত  সরাসরি সম্প্রচার করবে।

‘লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবে উদীচী’
আগামী ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস উপলে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে ‘লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ নামে অসাধারণ উদ্যোগে পুনরায় অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী। এক বিবৃতিতে একথা জানান উদীচী’র কেন্দ্রীয় সভাপতি কামাল লোহানী এবং সাধারণ সম্পাদক প্রবীর সরদার। ওই অনুষ্ঠানের জন্য যুদ্ধাপরাধী সংগঠন ও বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধে প্রত্যভাবে বিরোধীতাকারী জামায়াতে ইসলামীর তত্ত্বাবধানে পরিচালিত ইসলামী ব্যাংকের কাছ থেকে নেয়া তিন কোটি টাকা অনুদান গ্রহণ না করার বিষয়ে সরকারের পক্ষ থেকে অর্থ মন্ত্রণালয়ের ঘোষণা আসার পর এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে উদীচী।
বিবৃতিতে বলা হয়, একসাথে তিন লাখ মানুষের অংশগ্রহণে জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়ার ল্য নিয়ে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সরকারের আমন্ত্রণে অংশ নেয়ার বিষয়ে ‘একুশে পদক’প্রাপ্ত দেশের অন্যতম বৃহৎ সাংস্কৃতিক সংগঠন বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী সব ধরণের প্রস্তুতি নিয়েছিল। কিন্তু এরপর সরকার ইসলামী ব্যাংকের কাছ থেকে অনুদান নেয়ায় তা থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেয় উদীচী। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুদান নেয়ার সংবাদ দেশের প্রধান প্রধান গণমাধ্যমগুলোতে ছবিসহ প্রকাশিত হওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও গণমাধ্যমে এ বিষয়ে তীব্র সমালোচনা হয়।

পরবর্তীতে ওই অনুদান গ্রহণ না করার বিষয়ে ২৩ মার্চ আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে একজন যুগ্ম-সচিব। সরকারের পক্ষ থেকে ওই ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়েছে উদীচী। দেরিতে হলেও সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় তথা সরকারের শুভবুদ্ধির উদয় হওয়ায় ধন্যবাদ জানিয়ে বিবৃতিতে উদীচী’র কেন্দ্রীয় সভাপতি কামাল লোহানী ও সাধারণ সম্পাদক প্রবীর সরদার পরবর্তীতে রাষ্ট্রীয় যেকোন অনুষ্ঠানে ইসলামী ব্যাংকের কাছ থেকে কোন ধরণের অনুদান না নেয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান।

Print Friendly, PDF & Email

Sharing is caring!